রেজি নং -৬১০, বর্ষ-১১, সংখ্যা-৩৪।   Email: info@souhardobd.com,   মোবাইল: ০১৭৫৪-০৬৫৭০১

রবিবার , ডিসেম্বর ৮ ২০১৯
Home / জাতীয় / রাজনীতি বন্ধ ও উপাচার্যের পদত্যাগ চায় বুয়েট শিক্ষক সমিতি

রাজনীতি বন্ধ ও উপাচার্যের পদত্যাগ চায় বুয়েট শিক্ষক সমিতি

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলামের পদত্যাগ দাবি করেছে শিক্ষক সমিতি। এছাড়া বুয়েট ক্যাম্পাসে শিক্ষকদের রাজনীতিও বন্ধের দাবি জানিয়েছে শিক্ষক সমিতি। বুধবার (৯ অক্টোবর) আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংহতি জানাতে এসে এই দাবির কথা জানান বুয়েট শিক্ষক সমিতির সভাপতি এ কে এম মাসুদ।

এর আগে ক্যাম্পাসে বৈঠক করেন শিক্ষক সমিতির নেতারা। বৈঠক শেষে বেলা দুপুর ৩টার দিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতি সংহতি জানাতে আসেন শিক্ষক সমিতির নেতারা। সমিতির সভাপতি এ কে এম মাসুদ বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা যে দাবি জানিয়েছেন সেই দাবির সঙ্গে আমরা একমত। ক্যাম্পাসে বাজে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ হোক এটি আমরাও চাই। আমরা চাই ক্যাম্পাসে শিক্ষকদের যে কোনো ধরনের রাজনীতি বন্ধ হোক। আবরার হত্যাকাণ্ডে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কেউ জড়িত থাকলে আমরা তাদেরও আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।’

এদিকে আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন শেরেবাংলা হলের প্রভোস্ট ড. জাফর ইকবাল। তিনি এরইমধ্যে প্রশাসনের কাছে তার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। সোমবার (৭ অক্টোবর) ভোর চারটার দিকে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের উত্তর ব্লকের দ্বিতীয় তলার সিঁড়ি থেকে আবরার ফাহাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আবরার বুয়েটের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।

তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়া শহরের মুক্তিযোদ্ধা রোডে। বাবার নাম বরকত উল্লাহ। হল সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে হওয়া চুক্তি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়াকে কেন্দ্র করে রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) রাতে ‘শিবির’ আখ্যা দিয়ে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।